নীতি তোমাকে ভালোবাসি


Poetry
নীতি তোমাকে ভালোবাসি

দক্ষিনের বারান্দায় মধ্যরাতের আধো আলো আধাঁরির মাঝে জ্বলন্ত সিগারেট হাতে নিশ্চুপ কবি।
দু’চোখ তার দূর মেঘলা আকাশের পানে অস্পষ্ট দৃষ্টি সীমানায়,
জীবনের এই ক্ষনে এক পরাজিত সৈন্যের অন্ধকার মুখ ভাসে,
নীতি আমি ছূড়েঁ ফেলে দেয়া আস্তাকুড়েঁর সেই পচা কবি।


আকাশের নীলিমা আর অন্ধকারকে তুমি যেমন সত্য মেনেছিলে
আমি তেমন সত্য মেনেছি্লাম সমুদ্রের বুকে তার গম্ভীর রুপকে।
কুহেলিকার জালে আবদ্ধ করে রেখেছি্লাম নিরেট বাস্তবতাকে
কখনও বলিনি আমি সমুদ্রগুপ্ত ঐ প্রতিচ্ছবিকে বুকে লালন করেছি শুধু তোমাকে পাওয়ার জন্য।

পচা আমি এককোনে বসে এখন জাবর কাটি আর ভাবি কি নিয়ে তুমি আজ এত সুখে আছ।
আমার সব সত্যের বাতায়নের সুধা থেকে নীতি তুমি,
মধ্যরাতে আজ আমি একেবারে অসহায়, বড্ড নিশ্চুপ,
অস্ট্রিক শিশুর মত চিন্তাগুলো ওলটপালট হয়ে যায়।

পার না শুধু একবার বারিধারার মাঝে নীল শাড়ি পরে
মেরুন কালারের ছুড়ি হাতে দিয়ে আমার হাতটি ধরতে।
বাপ্পাদার “বৃষ্টি পড়ে”গানের সুরের মূর্ছনায় ভিজতে
নীতি আমার দু’চোখের নদীর দিকে একবার বলতে পার না “কবি তোমাকে ভালোবাসি”।

Pages